1. niblkvzwjcfd@inbox.ru : 12asd www.sristy.net :
  2. admin@sristy.net : admin :
  3. ERHRC23wddsf@gmail.com : AdminZaxHH34 :
  4. readzituckda@yahoo.com : alexandriablanch :
  5. jimgann@gmx.com : alexiscastiglia :
  6. marybetsuto@gmx.com : alfiedeville3 :
  7. krapnikovbogdan@gmail.com : allisoncraine72 :
  8. denzduquet@gmx.com : anastasiablau :
  9. xaviersecrest7784@hidebox.org : andreasarmstead :
  10. miswe@gmx.com : angelika3897 :
  11. vickymunro@hidebox.org : apriljoy55956 :
  12. atcurtita1982@coffeejeans.com.ua : archievelazquez :
  13. orsoncopseykwb@mail.com : armoale :
  14. aurelio.trujillo@kinomaxru.ru : aurelio66o :
  15. aconinab@yahoo.com : barrykeartland :
  16. imogenelee@midmico.com : basil17724819 :
  17. marianekoczu@gmx.com : beaudarrow2 :
  18. limaranna@yahoo.com : billarhonda :
  19. ivanletvinko1992@gmail.com : bradlyflanagan :
  20. vieconkasu1981@aabastion.com.ua : calebdenson :
  21. darwinlucas@varsidesk.com : cecilensu1 :
  22. ioaugspurge@gmx.com : celinapersinger :
  23. felisschak@gmx.com : chadwickclemente :
  24. marvistlou@gmx.com : charastillwell7 :
  25. imogthore@gmx.com : charityg02 :
  26. ovalenci@gmx.com : chris08v415816 :
  27. porskr@gmx.com : christiangiven7 :
  28. andreasbessie@petsplit.com : christimcleish3 :
  29. ruthstockm@gmx.com : chuechols79682 :
  30. tradamateqkala832@yahoo.com : cindicharbonneau :
  31. naja.bendtsen.1997@web.de : clariceaiello8 :
  32. wiboubalia3765@inbox.ru : clevelandgratwic :
  33. fredericla@gmx.com : clevelandhayter :
  34. moricigrumant@outlook.com : clobwik :
  35. jeanicmassar@gmx.com : collincruickshan :
  36. jonikug@gmx.com : cyrilharrel697 :
  37. reomanbuper@yahoo.com : danielageorgina :
  38. diacheckficmu@yahoo.com : demetriuschester :
  39. jetttardent@1secmail.com : doloreshalligan :
  40. pogewgep@yandex.ru : dominikbayldon :
  41. carolygall@gmx.com : dorris06k07965 :
  42. dorreineck@gmx.com : dougz6629398122 :
  43. thomaspoqu@gmx.com : elisax67493 :
  44. darrhafle@gmx.com : elissa0159 :
  45. glindmartic@gmx.com : epifaniadiamond :
  46. cyswa@gmx.com : ericacani548345 :
  47. holshinau@gmx.com : eusebiaavera :
  48. evicop@gmx.com : fausto37r75774 :
  49. jonepooleys@outlook.com : favvari :
  50. soledmacquarr@gmx.com : fawn33p8526 :
  51. keyssin@gmx.com : felixfetty :
  52. viepourfitip1983@coffeejeans.com.ua : flor113329777 :
  53. eboneuhar@gmx.com : frankiekahl35 :
  54. leatmana@gmx.com : gemmafoley0677 :
  55. iolanthnitkowsk@gmx.com : grantmannix200 :
  56. stanformatt@gmx.com : hannahroybal :
  57. alcervero1977@coffeejeans.com.ua : harrylarocca51 :
  58. gamagru@gmx.com : iolagill498824 :
  59. robiniccol@gmx.com : jefferystones2 :
  60. rodrickschreiner9984@safeemail.xyz : jestine1603 :
  61. leontinsticke@gmx.com : joeykozak322122 :
  62. timotcwalin@gmx.com : joleneangeles :
  63. jazaloud@gmx.com : jsvhalina0 :
  64. margotmaybell@kogobee.com : julissahyatt69 :
  65. elliottnewman4891@kittenemail.com : kaylenelombardo :
  66. charleysabo5394@hidebox.org : kelliaguilar942 :
  67. trogn@gmx.com : latoshabarrenger :
  68. latosha_peach@northernpinetreetrust.co.uk : latoshapeach8 :
  69. lauritheriot3@marry.raytoy.com : lauritheriot802 :
  70. gloriwu@gmx.com : leonor7342 :
  71. chrishal@gmx.com : lessierra6297 :
  72. paulettoschuppjedbra@gmail.com : levix80850161 :
  73. inpatalve@yahoo.com : lilianachambliss :
  74. chebotarenko.2022@mail.ru : linomcdavid76 :
  75. cipletede@yahoo.com : lorrichumleigh :
  76. csten@gmx.com : louissoubeiran3 :
  77. bremanocch@gmx.com : lourife80058359 :
  78. euphemisnid@gmx.com : lucielaidley891 :
  79. arrun@gmx.com : madiebellasis56 :
  80. sharilyurspr@gmx.com : malissak49 :
  81. lescutasoft@yahoo.com : malloryworgan45 :
  82. vinnisapa@gmx.com : mariloubriones :
  83. antoineeaston6275@hidebox.org : mauriciododds43 :
  84. notforalluse1@gmail.com : md Shopon islam :
  85. soninorr@gmx.com : merryschaefer :
  86. zeravemn7795@inbox.ru : milesrimmer16 :
  87. trazcoundiothe@yahoo.com : molliehoy920286 :
  88. tilpenttrafal@yahoo.com : monroefoust90 :
  89. derkar@gmx.com : murielelias102 :
  90. medpern@gmx.com : myracory91 :
  91. jorva@gmx.com : niamhdement0 :
  92. chawilf@gmx.com : philomenalogan4 :
  93. cheliheami1131@inbox.ru : porfirio55k :
  94. theobalnewna@gmx.com : qgrkimberly :
  95. esterntwandablette@gmail.com : rory416241 :
  96. lanerep@gmx.com : roseannebou :
  97. debrooz@gmx.com : rudygaither1427 :
  98. smtpfox-opnkm@hetmobielecafe.be : rxrhack1337 :
  99. kitcud@gmx.com : sandymuecke :
  100. shahindom76@gmail.com : Shahin :
  101. vegantato@yahoo.com : shanibeer61077 :
  102. ariadcamer@gmx.com : shastafoss1221 :
  103. joytr@gmx.com : shelleytrethowan :
  104. enedinrodge@gmx.com : sherylm662 :
  105. tmatushevs@gmx.com : sonjawhittell0 :
  106. donour@gmx.com : stantonfitzgibbo :
  107. lescriven@gmx.com : stephanielewers :
  108. karla.nguyen.1993@web.de : tandymccartney :
  109. laura.dalgaard.1984@web.de : taniabernal84 :
  110. test29683271@mail.imailfree.cc : test29683271 :
  111. test6956998@mail.imailfree.cc : test6956998 :
  112. onpilemo@yahoo.com : tiffanyhueber4 :
  113. jaylkozeya@gmx.com : toneyspann6 :
  114. viszczeblew@gmx.com : vilmar120074004 :
  115. medewal@gmx.com : xehnydia2599 :
HSC পদার্থ ২য় পত্র তৃতীয় অধ্যায় “খ” প্রশ্ন ও উত্তর : উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কবি কাজী নজরুল ইসলাম ‘ধ্রুব’ চলচ্চিত্রের একাধারে গীতিকার,সুরকার,সঙ্গীত পরিচালক ও অভিনেতা নিজেকে এমন ভাবে প্রতিষ্ঠিত করো যাতে তোমার ছবি তুলতে অনেকে লাইন ধরে মোবাইল কিনে না দেয়ার অভিমানে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা পাইকগাছায় জাতীয় জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন দিবসের আলোচনা ও গ্রাম পুলিশদের পুরস্কার বিতরণ তামাক কোম্পানীগুলো দেশব্যাপী পণ্য প্রচার বন্ধের দাবীতে সুনামগঞ্জে আরডিএসএর অবস্থান কর্মসূচী শাহজাদপুরে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন ও অগ্রগতি শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত খুলনার পাইকগাছায় প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তার চেক বিতরণ করলেন এমপি বাবু ইরানে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে হামলার নিন্দা জানিয়েছে হোয়াইট হাউস বিয়েবাড়িতে দাওয়াতে গিয়ে বিল্ডিং এর ছাদে কিশোরী ধর্ষিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠদানের মান উন্নয়ন সময়ের দাবী:সবারই আন্তরিক প্রচেষ্ঠায় হতে পারে শিবরামের কাছাকাছি  প্রতিষ্ঠান

HSC পদার্থ ২য় পত্র তৃতীয় অধ্যায় “খ” প্রশ্ন ও উত্তর

সৃস্টি ডেস্ক :
  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
  • ১৩৩১ বার দেখা হয়েছে
hsc গুরুত্বপূর্ণ ইলেকট্রনিক্স অধ্যায়ের ক প্রশ্ন ও উত্তর
hsc গুরুত্বপূর্ণ ইলেকট্রনিক্স অধ্যায়ের ক প্রশ্ন ও উত্তর

 

HSC পদার্থ বিজ্ঞান দ্বিতীয় পত্র তৃতীয় অধ্যায়ঃ গুরুত্বপূর্ণ  “খ” প্রশ্ন ও  উত্তর

১। অ্যামিটার এক প্রকার গ্যালভানোমিটার- ব্যাখ্যা কর। [চ.বো.-১৯]

উত্তরঃ যে যন্ত্রের সাহায্যে আধানের অস্তিত্ব ও প্রকৃতি নির্ণয় করা হয় তাকে গ্যালভানোমিটার বলে। গ্যালভানোমিটারের সাথে একটি স্বল্প মানের রোধ সমান্তরালে যুক্ত করলে তা অ্যামিটার এ রুপান্তরিত হয়। সুতরাং অ্যামিটার এক ধরনের গ্যালভানোমিটারভ

২। জুলের তাপীয় সূত্র ব্যাখ্যা কর।

উত্তরঃ জুলের তাপীয় বিক্রিয়ার সূত্রগুলো বিবৃত করা হলো- বিদ্যুৎবাহী পরিবাহীর রোধ  ও বিদ্যুৎ প্রবাহকাল  অপরিবর্তিত থাকলে পরিবাহীতে বিদ্যুৎ প্রবাহের দরুণ উদ্ভূত তাপ বিদ্যুৎ প্রবাহমাত্রার বর্গের সমানুপাতিক। অর্থাৎ , যদি  এবং  স্থির থাকে। কোনো পরিবাহীর ভেতর দিয়ে একই সময়ে  বিদ্যুৎ চালনা করলে পরিবাহীতে যদি উৎপন্ন তাপ যথাক্রমে  হয় তবে এ সূত্রানুসারে, =ধ্রুবক।

৩। শান্ট গ্যালভানোমিটারকে সুরক্ষা দেয়-ব্যাখ্যা কর।[চ.বো.-১৬]

উত্তরঃ অধিক পরিমাণ তড়িৎ প্রবাহ গিয়ে যাতে গ্যালভানোমিটারকে নষ্ট করতে না পারে সেজন্য গ্যালভানোমিটারের সাথে সমান্তরাল সমবায়ে শান্ট ব্যবহার করা হয়। এর ফলে মূল প্রবাহ দু-ভাগে বিভক্ত হয়ে যায় এবং শান্টের রোধ কম হওয়ায় বেশি পরিমাণ প্রবাহ এর মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয় এবং অল্প পরিমাণ প্রবাহ গ্যালভানোমিটারের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়। এতে গ্যালভানোমিটার নষ্ট হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পায়।




৪। সরু ধাতব তারকে সান্ট হিসেবে ব্যবহার করা হয় না কেন? ব্যাখ্যা কর।[সি.বো.-১৯]

উত্তরঃ রোধ তারের প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফলের ব্যস্তানুপাতিক। অর্থাৎ তারের প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফল কম হলে রোধ বেশি হয়। সরু ধাতব তারকে সান্ট হিসেবে ব্যবহার করলে তারের রোধের মান বেশি হয়। ফলে এর মধ্য দিয়ে অধিক মানের তড়িৎ প্রবাহিত হতে পারে না। এতে সান্টের উদ্দেশ্য ব্যাহত হয়। এজন্য সরু ধাতব তারকে সান্ট হিসেবে ব্যবহার করা হয় না।

পড়ুন>> HSC পদার্থ দ্বিতীয়  চতুর্থ অধ্যায় খ প্রশ্ন ও উত্তর

৫। নিরাপত্তা ফিউজে সরু তার ব্যবহার করা হয় কেন?

উত্তরঃ নিরাপত্তা ফিউজ হলো একটি স্বল্প দৈর্ঘ্যের চিকন তার যা বৈদ্যুতিক বর্তনীতে অধিক তড়িৎপ্রবাহ প্রতিরোধের জন্য জীবন্ত তারে সংযোগ দেওয়া হয়। নিরাপত্তা ফিউজে মোটা তার ব্যবহার করলে এর মধ্য দিয়ে অধিক পরিমাণে তড়িৎ প্রবাহ ঘটলে তারটি অক্ষত থাকবে। ফলে এই অধিক তড়িৎ প্রবাহ বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতির ক্ষতিসাধন করবে। এতে নিরাপত্তা ফিউজ ব্যবহারের উদ্দেশ্যই ব্যাহত হবে। এজন্যই বৈদ্যুতিক ফিউজে সরু তার ব্যবহার করা হয়, যাতে বেশি তড়িৎ প্রবাহিত হলে এটি উত্তপ্ত হয়ে গলে যায়।

৬। তাপমাত্রা বৃদ্ধির সাথে অর্ধপরিবাহীর পরিবাহকত্ব বৃদ্ধি পায় কেন? [কু.বো.-১৯]

উত্তরঃ নিম্ন তাপমাত্রায় অর্ধপরিবাহীতে ইলেকট্রনগুলো পরমাণুতে দৃঢ়ভাবে আবদ্ধ থাকে। এ তাপমাত্রায় সমযোজী অণুবন্ধনগুলো খুবই সবল হয় এবং সবগুলো যোজন ইলেকট্রনই সমযোজী অণুবন্ধন তৈরিতে ব্যস্ত থাকে। ফলে কোনো মুক্ত ইলেকট্রন থাকে না এবং অর্ধ-পরিবাহী কেলাস এ অবস্থায় যোজন ব্যান্ড পূর্ণ থাকে এবং যোজন ব্যান্ড ও পরিবহন ব্যান্ডের মাঝে শক্তির ব্যবধান বিরাট হয়। ফলে কোনো যোজন ইলেকট্রন পরিবহন ব্যান্ডে এসে মুক্ত ইলেকট্রনে পরিণত হতে পারে না। ফলে মুক্ত ইলেকট্রন না থাকার কারণে নিম্ন তাপমাত্রায় অর্ধপরিবাহী পদার্থ অন্তরকের ন্যায় আচরণ করে। তবে তাপমাত্রা বৃদ্ধি করা হলে অর্ধপরিবাহীর অনুবন্ধন ভাঙতে থাকে এবং অণুগুলো ধীরে ধীরে মুক্ত হয়ে চলাচলে সক্ষম হয়। এর ফলে এরা তড়িৎ পরিবহনেও সক্ষম হয়। এজন্যই তাপমাত্রা বৃদ্ধির সাথে অর্ধপরিবাহীর রোধ হ্রাস পায় এবং পরিবাহকত্ব বৃদ্ধি পায়।

৭। কোনো কোষের তড়িচ্চালক শক্তি  বলতে কী বুঝ?

উত্তরঃ কোনো কোষের তড়িচ্চালক বল  বলতে বুঝায়  চার্জকে কোষ সমেত কোনো বর্তনীর এক বিন্দু থেকে সম্পূর্ণ বর্তনী ঘুরিয়ে আবার ঐ বিন্দুতে আনতে  পরিমাণ কাজ করতে হয়।

৮। মিটার ব্রিজের প্রান্ত সংশোধন করা হয় কেন? [চ.বো.-১৯]

উত্তরঃ মিটার ব্রিজ তারের দু’প্রান্ত ধাতব পাতের সাথে ঝালাই করে লাগানো থাকে। ফলে ঝালাইয়ের দরুন প্রান্তে কিছু রোধ আসে। তাছাড়া তামা বা পিতলের পাতের কিছু রোধ থাকে। এমনকি তারটিও ঠিক এক মিটার নাও থাকতে পারে। এসব কারণে ধরে নেওয়া হয় তারের দু’প্রান্তে কিছু রোধ অন্তর্ভূক্ত হয়। এ রোধ হিসাবে না আনলে ফলাফল ত্রুটিপূর্ণ হয়। এ কারণে একে প্রান্ত ত্রুটি বলা হয়। এই ত্রুটি দূর করার জন্যই মিটার ব্রিজের প্রান্ত সংশোধন করা হয়।

৯। তাপমাত্রা বাড়লে পরিবাহীর রোধ বাড়ে কেন?ব্যাখ্যা কর।[ঢা.বো.-১৯]

উত্তরঃ মুক্ত ইলেকট্রন প্রবাহের সময় পরিবাহকের অণু পরমাণুর সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ কারণে পরিবাহকের রোধের উদ্ভব ঘটে। তাপমাত্রা বাড়লে পরিবাহকের অণু পরমাণু অতিরিক্ত শক্তি পায়। এতে তাদের কম্পনের পরিমাণ বেড়ে যায়। ফলে মুক্ত ইলেকট্রনের সাথে এদের সংঘর্ষ বৃদ্ধি পায় এবং প্রবাহ চলার পথে বেশি বাধার সৃষ্টি হয়। এতে করে পরিবাহকের রোধ বৃদ্ধি পায়।

১০। একটি পটেনশিওমিটার বিভব পতন পদ্ধতিতে কাজ করে কেন?

উত্তরঃ পটেনশিওমিটারের সাহায্যে বিভব পতন পদ্ধতিতে বিভব পার্থক্য ও কোষের তড়িচ্চালক বল পরিমাপ করা হয়। এর মধ্য দিয়ে তড়িৎ প্রবাহ স্থির থাকলে তারের যেকোনো অংশের বিভব পার্থক্য তারের ঐ অংশের সমানুপাতিক হয়। এটিই এর মূলনীতি যার উপর ভিত্তি করে এটি কাজ করে।

১১। বর্তনীতে বিদ্যুৎ প্রবাহ চলার ক্ষেত্রে অভ্যন্তরীণ রোধের ভূমিকা কী? [ঢা.বো.-১৭]

উত্তরঃ তড়িৎ কোষমুক্ত কোনো বর্তনীতে যখন প্রবাহ চলে তখন প্রবাহ কোষের ভেতরে তরল বা অন্যান্য পদার্থের মধ্য দিয়েও প্রবাহিত হয়। কোষের ভেতরে তড়িৎ প্রবাহের দিক কোষের ঋণাত্মক পাত থেকে ধনাত্মক পাতের দিকে। এই পাতদ্বয়ের মধ্যকার বিভিন্ন পদার্থ তড়িৎ প্রবাহের বিরুদ্ধে বাধার সৃষ্টি করে। এর ফলে কোষে অভ্যন্তরীণ রোধের সৃষ্টি হয়। আর এই অভ্যন্তরীণ রোধের মানের ওপর তড়িৎ প্রবাহের মান নির্ভর করে। অভ্যন্তরীণ রোধের মান বেশি হলে তড়িৎ প্রবাহের মান হ্রাস পায়।

পড়ুন>> HSC পদার্থ দ্বিতীয় পত্র চতুর্থ অধ্যায় ক প্রশ্ন ও উত্তর

১২। বৈদ্যুতিক পাখার সুইচ অন করার সাথে সাথে এটি সর্বোচ্চ বেগে ঘুরে না কেন?

উত্তরঃ বৈদ্যুতিক পাখার সুইচ অন করার সাথে সাথে তা সর্বোচ্চ বেগে ঘুরে না। কারণ বৈদ্যুতিক পাখা  তে চলে। বাসা-বাড়ির সংযোগসমূহ  প্রবাহে চলে।  প্রবাহে তড়িৎপ্রবাহ শীর্ষমানে পৌঁছতে কিছু সময় লাগে। তাই বৈদ্যুতিক পাখার সুইচ অন করার সাথে সাথে তা সর্বোচ্চ বেগে ঘুরা শুরু করে না। প্রবাহ শীর্ষমানে পৌছালে সর্বোচ্চ বেগে ঘুরে।

১৩। শান্ট কীভাবে গ্যালভানোমিটারকে রক্ষা করে? [সকল.বো.-১৮]

উত্তরঃ অধিক পরিমাণ প্রবাহ গিয়ে যাতে গ্যালভানোমিটার বা সূক্ষ্ম ও সুবেদী বৈদ্যুতিক যন্ত্রকে নষ্ট করতে না পারে তার জন্য যন্ত্রের সাথে সমান্তরালে স্বল্প মানের যে রোধ যুক্ত করা হয় তাই শান্ট। শান্টের প্রধান কাজ হলো গ্যালভানোমিটারের বিদ্যুৎ প্রবাহ হ্রাস করে একে অতি বিদ্যুৎ প্রবাহজনিত ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করা। শান্টকে বর্তনীতে সমান্তরালে সংযোগ দেওয়া হয় যাতে অতিরিক্ত প্রবাহ শান্টের মধ্যদিয়ে প্রবাহিত হতে পারে। এভাবে,  শান্ট গ্যালভানোমিটারকে রক্ষা করে।




১৪। কার্শফের ১ম সূত্র চার্জের সংরক্ষণ নীতি মেনে চলে-ব্যাখ্যা কর।[সকল.বো.-১৮]

উত্তরঃ কার্শফের ১ম সূত্র থেকে আমরা পাই, বিদ্যুৎ বর্তনীর কোনো সংযোগ বিন্দুতে মিলিত প্রবাহমাত্রাগুলোর বীজগাণিতিক যোগফল শূন্য হয়। আবার আমরা জানি, প্রবাহমাত্রা হলো চার্জের প্রবাহ। এখন সংযোগ বিন্দুতে প্রবাহমাত্রাগুলোর যোগফল যদি শূন্য না হয় তাহলে ঐ বিন্দুতে চার্জের সৃষ্টি বা ধ্বংস হওয়া বুঝায়। যা চার্জের নিত্যতা সূত্রের সম্পূর্ণ পরিপন্থী। তবে বর্তনীর কোথাও চার্জ সঞ্চিত হতে পারে না। কিন্ত এই সূত্রানুসারে  । অর্থাৎ কার্শফের ১ম সূত্র চার্জের সংরক্ণ নীতি মেনে চলে।

১৫। অ্যালুমিনিয়ামের রোধের তাপমাত্রা গুণাঙ্ক  বলতে কী বোঝ? [য.বো.-১৭]

উত্তরঃ অ্যালুমিনিয়ামের রোধের তাপমাত্রা গুণাঙ্ক  বলতে বুঝায় যে  রোধ বিশিষ্ট কোনো অ্যালুমিনিয়াম পরিবাহীর তাপমাত্রা  বৃদ্ধি পেলে এর রোধ  বৃদ্ধি পাবে।

১৬। নিরাপত্তা ফিউজে বিশুদ্ধ ধাতু ব্যবহার না করার কারণ কী? [ঢা.বো.-১৬]

উত্তরঃ নিরাপত্তা ফিউজ হলো একটি স্বল্প দৈর্ঘ্যের চিকন তার যা বৈদ্যুতিক বর্তনীতে অধিক তড়িৎপ্রবাহ প্রতিরোধের জন্য জীবন্ত তারে সংযোগ দেওয়া হয়। নিরাপত্তা ফিউজে বিশুদ্ধ ধাতু ব্যবহার করলে এর মধ্য দিয়ে অধিক পরিমাণে তড়িৎ প্রবাহ ঘটলে তারটি অক্ষত থাকবে ফলে এই অধিক তড়িৎপ্রবাহ বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতির ক্ষতিসাধন করবে। এতে নিরাপত্তা ফিউজ ব্যবহারের উদ্দেশ্যই ব্যাহত হবে। এজন্যই নিরাপত্তা ফিউজে বিশুদ্ধ ধাতু ব্যবহার করা যায় না।

১৭। গ্যালভানোমিটারকে কীভাবে অ্যামিটার হিসেবে ব্যবহার করা যায়?

উত্তরঃ যেহেতু অ্যামিটারটিকে বর্তনীতে শ্রেণি-সমবায়ে যুক্ত করতে হয় তাই এর রোধ বর্তনীতে কাযকর হয়, ফলে বর্তনীর প্রবাহের মান পরিবর্তিত হতে পারে। এর জন্য গ্যালভানোমিটারের কুন্ডলীর সাথে সমান্তরাল সমবায়ে একটি অল্পমানের রোধের তার সান্ট হিসেবে যুক্ত করা হয়। এতে যন্ত্রের তুল্য রোধ খুব কম হয়, ফলে অ্যামিটার বর্তনীতে যুক্ত করলে বর্তনীতে প্রবাহের কাযত কোনো পরিবর্তন হয় না এবং প্রবাহের একটি ক্ষুদ্র অংশ মাত্র কুন্ডলীর ভেতর দিয়ে প্রবাহিত হয় এবং যন্ত্রটি নষ্ট হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পায়।

১৮। তাপমাত্রার সাথে রোধের পরিবর্তনের কারণ ব্যাখ্যা কর।[সি.বো.-১৬]

উত্তরঃ মুক্ত ইলেকট্রন প্রবাহের সময় পরিবাহকের অণু পরমাণুর সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ কারণে পরিবাহকের রোধের উদ্ভব ঘটে। তাপমাত্রা বাড়লে পরিবাহকের অণু পরমাণু অতিরিক্ত শক্তি পায়। এতে তাদের কম্পনের পরিমাণ বেড়ে যায়। ফলে মুক্ত ইলেকট্রনের সাথে এদের সংঘর্ষ বৃদ্ধি পায় এবং প্রবাহ চলার পথে বেশি বাধার সৃষ্টি হয়। এতে করে পরিবাহকের রোধ বৃদ্ধি পায়। এজন্যই তাপমাত্রার সাথে রোধের পরিবর্তন ঘটে।

১৯। কোনো পরিবাহীর পরিবাহিতা 0.2 সিমেন্স বলতে কী বোঝায়? [সি.বো.-১৬, ব.বো.-১৬]

উত্তরঃ কোনো পরিবাহীর পরিবাহিতা 0.2 সিমেন্স বলতে বুঝায় ঐ পরিবাহকের দুই প্রান্তের বিভব পার্থক্য 1 ভোল্ট হলে তার মধ্য দিয়ে  তড়িৎ প্রবাহ চলে এবং পরিবাহীর রোধ

২০। কোনো পরিবাহীর মধ্য দিয়ে তড়িৎ প্রবাহ চলার সময় তাপ উৎপন্ন হয় কেন? [রা.বো.-১৫, য.বো.-১৯]

উত্তরঃ পরিবাহীতে তড়িৎ প্রবাহের সময় পরিবাহী উত্তপ্ত হয়। ধাতব পরিবাহীতে অণুগুলো স্থির নয়। এরা সর্বদা কম্পনরত অবস্থায় থাকে। পরিবাহীর মধ্যে মুক্ত ইলেকট্রনের প্রবাহের ফলে তড়িৎ প্রবাহ সৃষ্টি হয়। মুক্ত ইলেকট্রন প্রবাহের সময় পরিবাহীর অণু পরমাণুর সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। ফলে পরিবাহীতে রোধের উদ্ভব ঘটে। এ কারণে প্রবাহ বাধাগ্রস্থ হয়। ফলে পরিবাহী উত্তপ্ত হয়। অর্থাৎ প্রবাহ চলাকালে পরিবাহীতে তাপের উদ্ভব ঘটে।

২১। তাপমাত্রার বিবেচনায় পরিবাহী এবং অর্ধপরিবাহীর মধ্যে পার্থক্য কী? [কু.বো.-১৫]

উত্তরঃ তাপমাত্রার বিবেচনায় পরিবাহী এবং অর্ধপরিবাহীর মধ্যে পার্থক্য নিম্নরুপঃ

পরিবাহীঃ ১. সাধারণ তাপমাত্রায় তড়িৎ পরিবহন করে। ২. তাপমাত্রা বাড়ালে রোধ বাড়ে। ৩. তাপমাত্রা কমালে পরিবাহকত্ব বাড়ে।

অর্ধপরিবাহীঃ ১. সাধারণ তাপমাত্রায় অল্প পরিমাণ তড়িৎ পরিবহন করে। ২. তাপমাত্রা বাড়ালে রোধ কমে। ৩. তাপমাত্রা কমালে পরিবাহকত্ব কমে।

২২। বিভব পার্থক্যের একক  ব্যাখ্যা কর।[কু.বো.-১৫]

উত্তরঃ বিভব পার্থক্যের একক বা,  বা,  বলতে বুঝায়ঃ এক সেকেন্ড সময় যাবৎ কোনো তড়িৎ বর্তনীতে  তড়িৎ প্রবাহিত করলে বর্তনীর  শক্তি ব্যয়িত হয়। অর্থাৎ  তড়িৎ কোনো বর্তনীতে প্রবাহিত হলে তার ক্ষমতা  কাযকর হয়।

পড়ুন>> একটি উৎকৃষ্ট সবজি চিচিংগা চাষ পদ্ধতি

২৩। কোনো পরিবাহীতে সৃষ্ট তাপ কী কী বিষয়ের উপর নির্ভর করে?

উত্তরঃ কোনো পরিবাহকের মধ্যে তড়িৎ প্রবাহের সময় ইলেকট্রন এবং পরমাণুর মধ্যকার সংঘর্ষের ফলে তাপের উদ্ভব হয়। এ উৎপন্ন তাপ তড়িৎ প্রবাহ, রোধ ‍ও প্রবাহকালের উপর নির্ভর করে। কারণ উৎপন্ন তাপ প্রবাহমাত্রার বর্গের সমানুপাতিক, প্রবাহকালের সমানুপাতিক এবং রোধের সমানুপাতিক।

২৪। কোষের অভ্যন্তরীণ রোধ বেড়ে গেলে তড়িৎ প্রবাহের পরিবর্তন ব্যাখ্যা কর।

উত্তরঃ আমরা জানি, কোষের তড়িচ্চালক শক্তি  বহিঃরোধ  এবং অভ্যন্তরীণ রোধ  হলে, তড়িৎপ্রবাহ,  অর্থাৎ অভ্যন্তরীণ রোধ বেড়ে গেলে কোষের মোট রোধ বেড়ে যাবে ফলে প্রবাহ মাত্রা কমে যাবে।

২৫। তামার আপেক্ষিক রোধ  বলতে কী বুঝ?

উত্তরঃ তামার আপেক্ষিক রোধ  বলতে বুঝায়  দৈর্ঘ্য ও  প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফলবিশিষ্ট তামার তারের রোধ হবে।




২৬। ভোল্টমিটারকে সমান্তরালে যুক্ত করা হয় কেন?

উত্তরঃ আমরা জানি, ভোল্টমিটারের অভ্যন্তরীণ রোধের মান অনেক বেশি। ফলে ভোল্টমিটারকে সমান্তরালে যুক্ত করলে এর মধ্য দিয়ে সামান্য পরিমাণ বিদ্যুৎ প্রবাহিত হয়। যার ফলে বর্তনীর মূল প্রবাহমাত্রার কোনো পরিবর্তন ঘটে না। ফলে ভোল্টমিটারও সঠিক পাঠ দেয়। এজন্য ভোল্টমিটারকে সমান্তরালে যুক্ত করা হয়।

২৭। আপেক্ষিক রোধ পরিবাহীর উপাদানের উপর নির্ভর করে ব্যাখ্যা কর।

উত্তরঃ নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় একক দৈর্ঘ্য ও একক প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফল বিশিষ্ট কোনো পরিবাহীর রোধকে আপেক্ষিক রোধ বলে। বিভিন্ন পদার্থের আপেক্ষিক রোধ বিভিন্ন। কারণ আপেক্ষিক রোধ পরিবাহীর উপাদানের উপর নির্ভর করে। যে পদার্থের আপেক্ষিক রোধের মান বেশি সেই পদার্থের পরিবাহীতা কম। পরিবাহীর উপাদানের গাঠনিক বৈশিষ্ট্যের বিভিন্নতার কারণে আপেক্ষিক রোধের মান বিভিন্ন হয়।

২৮। নিরাপত্তা ফিউজ ব্যবহার করা হয় কেন?

উত্তরঃ ফিউজ একটি রোধক যার গলনাঙ্ক কম। বাসা বাড়িতে বৈদ্যুতিক বর্তনীতে এটি ব্যবহার করা হয়। আমরা জানি, অতিরিক্ত বিদ্যুৎ প্রবাহের দরুন ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি নষ্ট হয়। বর্তনীতে ফিউজ না থাকলে প্রয়োজনের বেশি বিদ্যুৎ প্রবাহমাত্রায় এটি ঘটে থাকে। ফিউজ থাকলে প্রয়োজনের বেশি বিদ্যুৎ প্রবাহমাত্রা থাকলে ফিউজটি কেটে যায় এবং বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। ফলে সম্ভাব্য ক্ষতির হাত থেকে যন্ত্রপাতি রক্ষা পায়। এ বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্যই বর্তনীতে ফিউজ ব্যবহার করা হয়।

২৯। বৈদ্যুতিক সিস্টেম লস কী এবং কেন হয় ব্যাখ্যা কর।

উত্তরঃ পরিবহনের সময় তড়িতের কিছু পরিমাণ লস অর্থাৎ ক্ষয় হয়। একে তড়িতের সিস্টেম লস বলে। আমরা জানি, বিদ্যুৎ সঞ্চালনের জন্য যে সকল পরিবাহী তার ব্যবহার করা হয় তাদেরে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ রোধ থাকে। ফলে এ রোধকে অতিক্রমের জন্য তড়িৎশক্তির একটি অংশ তাপে রুপান্তরিত হয় অর্থাৎ লস বা ক্ষয় হয়।

৩০। কোষের দুই প্রান্তের বিভব পার্থক্য কোষের তড়িচ্চালক শক্তির চেয়ে কম হয়-ব্যাখ্যা কর।

উত্তরঃ মুক্ত অবস্থায় অর্থাৎ যখন তড়িৎ প্রবাহ চলে না কখন কোষের দুই প্রান্তের যে বিভব পার্থক্য হয় তার দ্বারা কোষের তড়িচ্চালক শক্তি পরিমাপ করা হয়। কিন্ত কোষের অভ্যন্তরীণ রোধের কারণে কোষের ভেতর তড়িৎ প্রবাহিত হওয়ার সময় তার দু’প্রান্তে বিভব পার্থক্যের সৃষ্টি হয়। ফলে যখন কোষটি তড়িৎ প্রবাহ চালনা করে এর দুই প্রান্তের বিভব পার্থক্য কোষের তড়িচ্চালক শক্তির চেয়ে কম হয়।

৩১। রোধের সূত্রগুলো ব্যাখ্যা কর।

উত্তরঃ তাপমাত্রা স্থির থাকলে কোনো পরিবাহীর রোধ শুধুমাত্র এর দৈর্ঘ্য, প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফল এবং উপাদানের উপর নির্ভর করে। রোধের এই নির্ভরশীলতা দুটি সূত্রের সাহায্যে প্রকাশ করা যায়। দৈর্ঘ্যের সূত্রঃ নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় নির্দিষ্ট উপাদানের পরিবাহীর প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফল স্থির থাকলে পরিবাহীর রোধ এর দৈর্ঘ্যের সমানুপাতিক। পরিবাহীর দৈর্ঘ্য  প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফল এবং রোধ  হলে, এই সূত্রানুসারে  যখন  ধ্রুব থাকে। প্রস্থচ্ছেদের সূত্রঃ নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় নির্দিষ্ট উপাদানের পরিবাহীর দৈর্ঘ্য স্থির থাকলে পরিবাহীর রোধ এর প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফলের ব্যস্তানুপাতিক। অর্থাৎ  যখন ধ্রুব থাকে।




৩২। কোনো বৈদ্যুতিক বাতির গায়ে  লেখা থাকলে কী বুঝায়?

উত্তরঃ বৈদ্যুতিক বাতির গায়ে লেখা থাকলে এর অর্থ হলো-  বিদ্যুৎ উৎসের সাথে যুক্ত করলে এটি সর্বাধিক উজ্জ্বলতায় আলো দেবে।  কথার অর্থ হল বাতিটি প্রতি সেকেন্ডে  বিদ্যুৎ শক্তি ব্যয় করে।

৩৩। রোধের সমান্তরাল সমবায় বলতে কী বোঝ?

উত্তরঃ কতকগুলো রোধ যদি এমনভাবে সাজানো থাকে যে, এদের মাথার এক প্রান্ত একটি সাধারণ বিন্দুতে এবং অপর প্রান্তগুলো অন্য একটি সাধারণ বিন্দুতে সংযুক্ত থাকে এবং প্রত্যেকটি রোধের দুই প্রান্তে একই বিভব পার্থক্য বজায় থাকে তাহলে সেই সমবায়কে রোধের সমান্তরাল সমবায় বলে।

পড়ুন>> এইচ এস সি পদার্থ বিজ্ঞান ১ম পত্র (৩য় অধ্যায়)

৩৪। তাপের যান্ত্রিক তুল্যাঙ্ক  বলতে কী বোঝ?

উত্তরঃ তাপের যান্ত্রিক তুল্যাঙ্ক  বলতে বুঝায়, এক ক্যালরি তাপ উৎপন্ন করতে 4.2 জুল পরিমাণ কাজ সম্পন্ন করতে হবে। অর্থাৎ 4.2 জুল কাজ সম্পূর্ণরুপে তাপে রুপান্তরিত হলে 1 ক্যালরি তাপ উৎপন্ন হবে।

৩৫। তাপমাত্রার সাথে আপেক্ষিক রোধের পরিবর্তন ব্যাখ্যা কর।

উত্তরঃ আমরা জানি,  এখানে  হলো রোধের উষ্ণতা গুণাঙ্ক। অতএব, এই সমীকরণের আলোকে আমরা বলতে পারি, তাপমাত্রা বাড়লে আপেক্ষিক রোধ বাড়ে এবং তাপমাত্রা কমলে আপেক্ষিক রোধ কমে। তবে পরিবর্তনটি সমানুপাতিক হারে হয় না।

৩৬। তড়িৎ প্রবাহের তাপীয় ক্রিয়া কিসের উপর নির্ভর করে?

উত্তরঃ যে ক্রিয়া দ্বারা কোনো পরিবাহীর ভেতর দিয়ে তড়িৎ প্রবাহিত হলে পরিবাহী উত্তপ্ত হয়, তাকে তড়িৎ প্রবাহের তাপীয় ক্রিয়া বলে। এটি পরিবাহীর রোধ, পরিবাহীর প্রবাহমাত্রা ও প্রবাহকালের উপর নির্ভর করে।

৩৭। কোনো কোষের তড়িচ্চালক বল  বলতে কী বুঝ?

পড়ুন>> মডেল টেস্ট-২৬ কৃষি উপসহকারি কর্মকর্তা পরীক্ষা

উত্তরঃ কোনো কোষের তড়িচ্চালক বল  বলতে বুঝায়  চার্জকে কোষ সমেত কোনো বর্তনীর এক বিন্দু থেকে সম্পূর্ণ বর্তনী ঘুরিয়ে আবার ঐ বিন্দুতে আনতে  পরিমাণ কাজ করতে হয়।

৩৮। অ্যামিটারের সাথে সমান্তরালে শান্ট ব্যবহার করা হয় কেন?

উত্তরঃ অ্যামিটারের পাল্লা বৃদ্ধির জন্য এর সাথে সমান্তরাল সমবায়ে শান্ট ব্যবহার করা হয়। এতে একটি স্বল্প পাল্লার অ্যামিটারকে সহজেই বেশি পাল্লার অ্যামিটারে পরিণত করা যায় এবং অ্যামিটারটি তখন বেশি তড়িৎ প্রবাহ পরিমাপ করতে পারে।

৩৯। কোষের অভ্যন্তরীণ রোধ নগন্য না হলে কী ঘটে-ব্যাখ্যা কর।

উত্তরঃ কোষের অভ্যন্তরীণ রোধ নগন্য না হলে তড়িচ্চালক শক্তির একটি অংশ কোষের অভ্যন্তরেই বিভব পতনরুপে খরচ হয়ে যায় যা বহিঃস্থ বর্তনীতে ব্যবহার করা যায় না। এতে বহিঃস্থ বর্তনীর দুপ্রান্তে বিভব পার্থক্য তুলনামূলকভাবে কম মানের হয়। ফলে কোষের তড়িচ্চালক শক্তির কাযকর মান কমে যায়।

৪০। বৈদ্যুতিক হিটারে কীভাবে তাপ উৎপন্ন হয়?

উত্তরঃ বৈদ্যুতিক হিটারে তাপ সহনীয় ও অপরিবাহী পদার্থের কাঠামোর উপর নাইক্রোম তারের কুন্ডলী ঘন করে সাজানো থাকে।নাইক্রোমের আপেক্ষিক রোধ অনেক বেশি। এ জন্য ঘন করে সাজানো নাইক্রোমের মধ্য দিয়ে তড়িৎ প্রবাহিত করলে এর প্রতি একক আয়তনে প্রচুর তাপ উৎপন্ন হয়। এভাবে বৈদ্যুতিক হিটারে তাপ উৎপন্ন হয়।

৪১। বিদ্যুৎ শক্তি ব্যয়ের হিসাব করা হয় কিভোবে?

উত্তরঃ বিদ্যুৎ সরবরাহ কোম্পানি বাড়িতে বা কল-কারখানায় যে বিদ্যুৎ শক্তি সরবরাহ করে তার পরিমাপ শক্তির একক অনুযায়ী করা হয়। একে কিলোওয়াট ঘন্টা বাবলে। যেহেতু সারা বিশ্বের বিদ্যুৎ সরবরাহ কোম্পানি এই একই একক ব্যবহার করে বিদ্যুৎ কেনা-বেচা করে, সেজন্য একে বোর্ড অব ট্রেড  বা ব্যবসায়িক একক বলে।

৪২। তাপমাত্রার পরিবর্তন হলে ওহমের সূত্র প্রযোজ্য হয় না কেন?

উত্তরঃ আমরা জানি, তাপমাত্রা পরিবর্তনের ফলে পরিবাহীর রোধের পরিবর্তন ঘটে। কিন্ত ওহমের সূত্র নির্দিষ্ট মানের রোধের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। এজন্যই পরিবর্তনশীল তাপমাত্রায় ওহমের সূত্র প্রযোজ্য হয় না




 

এ জাতীয় আরও পড়ুন

প্রকাশক: মোঃ মোখলেছুর রহমান,  সহকারি অধ্যাপক -পদার্থ বিজ্ঞান, সোনাহাট ডিগ্রী কলেজ।

স্বত্ত্বাধিকার:  মৃত্তিকা সফট ভূরুঙ্গামারী,কুড়িগ্রাম

যোগাযোগ: Email:sristy2020.net@gmail.com

মোবাইল: ০১৩০৩৬৫৬৩৮৫

 




error: Content is protected !!