কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে ৫ জুন শনিবার দুপুরে ভূরুঙ্গামারী সরকারি পাইলট হাইস্কুল মাঠে ব্যাপী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপক কুমার দেব শর্মার সভাপতিত্বে উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরেনারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনায় প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী/২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রদর্শনীতে ৩০ টি স্টলে বিভিন্ন জাতের গরু,ছাগল, ভেড়া, হাঁস, মুরগী ও বিভিন্ন ধরনের পাখি প্রদর্শন করা হয়।জেনে নিন>সারা বছর লিচু সংরক্ষণ করে রাখার কৌশল শ্রেষ্ঠ দুগ্ধ খামারী হিসাবে সোনাহাট ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক বদরুজ্জামান রতনকে বিশেষ পুরুস্কার প্রদান করা হয়।  অতিথিসহ  দর্শণার্থীদের ভীড় ছিল বদরুজ্জামান রতনের কাজলী নামের গাভীকে।

খামারী রতন বলেন,  পরিবারের দুধের চাহিদা পুরণের জন্য শখের বসে কয়েক বছর আগে একটি গাভী কেনেন। আরও জানুুন>ভূরুঙ্গামারীর মীর জুমলা (অতিপ্রাচীন) মসজিদ গাভী পরিচর্যা করতে করতেই গাভী প্রেমী হয়ে ওঠেন। এখন আমার ছোট পরিসরের খামারে মোট ২০টি গরু হয়েছে। এর মধ্যে বর্তমানে তিনটি গাভী থেকে  দৈনিক প্রায় ৮৫ থেকে ৯০ কেজি দুধ পাচ্ছি। এ মধ্যে কাজলী নামের গাভীটি থেকে ৩২ থেকে ৩৫ কেজি দুধ পাই।



প্রধান অতিথি  উপজেলা চেয়ারম্যান নূরন্নবী চৌধুরী খোকন বলেন, আমার কলেজের প্রভাষক বদরুজ্জামান দেখিয়ে দিয়েছে যে,  ইচ্ছা থাকলে এবং পরিশ্রম করলে ভালো কিছু করা সম্ভব। পড়ুন>>করলা বা উচ্ছে চাষ পদ্ধতি তিনি আরও বলেন রতন স্যারকে অনুসরণ করে বেকাররা চাকুরীর পিছনে না ঘুরে নিজেই একজন উদ্যোক্তা হতে পারবে।



এ সময় উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ শামীমা আক্তার,ভেটেরেনারী সার্জন ডা: আব্দুল মমিন উপজেলা প্রাণি সম্পদ সম্প্রসারন কর্মকর্তা এনামুল হক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন আহম্মেদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন





 1,264 total views,  3 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *