কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে বৈদ্যূতিক শর্ট সার্কিট থেকে সৃষ্ট ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১২টি দোকান ও আসবাপত্র সহ অন্যান্য মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।এতে অর্ধ কোটি টাকার মালালের ক্ষতি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দিবাগত রাত একটার দিকে উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়নের কুড়ারপাড় ইট ভাটা সংলগ্ন বাজারে।


এলাকাবাসী জানিয়েছে,উপজেলার পাইকের ছড়া ইউনিয়নের কুড়ার পাড় বাজারে রাত আনুমানিক ১২.৪৫ মিনিটে একটি চা এর দোকান থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়।মূহুর্তের মধ্েযই আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পড়ে।পরে এলাকাবাসী আগুন দেখতে পেয়ে নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছনোর আগেই সেখানে থাকা ১২ টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে একটি দোকানের একাংশ রক্ষা করেন এবং আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন।
এতে অর্ধকোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে।


ক্ষতিগ্রস্ত দোকানী আকতার আলী ও আলমগীর হোসেন বলেন আমাদের দোকানের ভিতরে থাকা সব মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।এতে আমাদের প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।ক্ষতিগ্রস্থ চা’য়ের দোকানের মালিক আব্দুস সামাদ বলেন ভূরুঙ্গামারীতে ফায়ার স্টেশন না থাকার কারনে বিভিন্ন সময়ে অগ্নিকান্ডে ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে।আমরা দ্রুত ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনের দাবি জানাচ্ছি।


 

এ বিষয়ে নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসে স্টেশনের স্টেশন মাষ্টার ইমন মিয়া বলেন আমরা ঘটনাস্হলে পৌঁছনোর আগেই বাজারটির সবগুলো দোকান পুড়ে গেছে। আমরা এসে একটি দোকানের একাংশ রক্ষা করতে পেরেছি।বৈদ্যূতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগোনের উৎপত্তি হয়েছে বলে আমরা প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছি।
ভূরুঙ্গামারী পল্লী বিদ্যূতর অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার কাওছার আলম বলেন বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখব।

 


 


 



 

 1,208 total views,  3 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *